Search
Close this search box.

ত্বকের যত্নে ভিটামিন-বি

যদি আপনি দীর্ঘস্থায়ী ত্বকের সমস্যাগুলির জন্যে ভুগছেন, অথবা আপনার ত্বক যদি নিস্তেজ ও অনুজ্জ্বল মনে হয়, তবে সহজ উত্তর আপনার ত্বকে ভিটামিন ‘বি’ এর অভাব হতে পারে।

ভিটামিন ‘বি’ আপনার শরীরের কার্যকারিতা পরিচালনার জন্য অপরিহার্য পুষ্টি উপাদান।

‘বি’ ভিটামিন একসাথে শরীরের গুরুত্বপূর্ণ স্বাস্থ্য সুবিধা প্রদান করে, যেমন

  • দেহে লাল রক্ত কণিকা উৎপাদনে সাহায্য করে
  • স্নায়ুতন্ত্র পরিচালনায় অংশ নেওয়া
  • ক্যান্সার প্রতিরোধ
  • সুস্থ বিপাকীয়তা নিশ্চিতকরণ
  • মানসিক চাপের নেতিবাচক প্রভাবের সাথে মোকাবেলা
  • ত্বকের মান সংরক্ষণ

উপরে তালিকার শেষ সুবিধাটি সম্ভবত সবচেয়ে স্পষ্ট কেননা আপনার ত্বক সবসময় চোখের সামনে থাকে, তাই ভিটামিনের অভাবগুলো চোখে ধরা দেয়।

যদিও আপনার শরীরের সামগ্রিক স্বাস্থ্য রক্ষা করার জন্য ভিটামিন’ বি’ প্রয়োজন, তবে তার বেশিরভাগ কাজগুলি খালি চোখে দেখা যায় না।

এবং শুধু  ত্বকের সমস্যাগুলি স্পষ্ট। ভিটামিন ‘বি কমপ্লেক্স’ শরীরের জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয় ভিটামিন, এবং প্রতিদিনের খাবারে ভিটামিন ‘বি কমপ্লেক্স’ থাকা আবশ্যক।

শরীরে এসব ভিটামিন এর অভাবে হতে পারে বিভিন্ন রোগব্যাধি।

ভিটামিন ‘বি’ এর অভাবে ব্রণ হতে পারে, সূর্যালোকের সংবেদনশীলতা, ঠোঁট ফাঁটা, ত্বকের শুষ্কতা, ত্বকে ভাঁজ পড়া, কালো দাগ, এবং একটি অসম রঙ আসতে পারে।  

আমরা ত্বকে ভিটামিন বি এর ঘাটতি পূরণে কত কিছুই না করি। আসুন আমরা ভিটামিন ‘বি’ এর কিছু উৎস সম্বন্ধে জেনে নিই।

মাছ

মাছ ভিটামিন ‘বি-১২’ এর সমৃদ্ধ উৎস।

মাছের কোষে ভিটামিন সঞ্চিত হতে পারে ব্যাকটেরিয়ার মাধ্যমে। সারডিন, স্যালমন ও খোলসযুক্ত মাছে ‘বি’ ভিটামিন পাওয়া যায় ।

গরুর কলিজা

‘বি’ ভিটামিনের একটি অন্যতম ভালো উৎস হচ্ছে গরুর কলিজা। দৈনিক চাহিদার অর্ধেকের বেশি পূরণ করতে পারে ৬৮ গ্রাম ওজনের গরুর কলিজার একটি টুকরা।

মুরগী 

সারাবছরই সহজলভ্য ‘বি কমপ্লেক্সে’র ভালো ও ব্যতিক্রমী উৎস হচ্ছে মুরগীর মাংস।

এছাড়াও আমিষ ও খনিজেও পরিপূর্ণ থাকে মুরগীর মাংস। রান্না করা মুরগীর বুকের মাংসে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ‘বি’ থাকে যা বিপাকের জন্য প্রয়োজনীয়।

ডিম ও দুধ 

‘বি’ ভিটামিনের চমৎকার উৎস ডিম। ডিমে প্রায় প্রতিটা ‘বি’ ভিটামিনই পাওয়া যায়।

ভিটামিন ‘বি-১২’ এর সবচেয়ে ভালো উৎস হচ্ছে ডিমের কুসুম, যা লাল রক্ত কণিকার উৎপাদনে সাহায্য করে।

ভিটামিন-বি এর পাশাপাশি ডিমে বায়োটিন থাকে যা বিপাকের নিয়ন্ত্রণে, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে এবং কোষের বৃদ্ধিতে সাহায্য করে।

দুধ ও দুগ্ধজাত পণ্যে থায়ামিন, রিবোফ্লাবিন ও ‘বি-১২’ থাকে ।

ত্বকের জন্য উপকারী ভিটামিন ‘বি’

সৌন্দর্যের সবচেয়ে জনপ্রিয় অংশটি হলো আমাদের ত্বক। তাই নিয়মিত ত্বকের যত্ন নেওয়া জরুরী।

বয়স বাড়ার সাথে সাথে আমাদের ত্বকের কোলাজেন কমে যায়। ত্বকে ভাঁজ পড়তে শুরু করে।

ত্বকের এই সমস্যা দূর করতে প্রয়োজন নিয়মিত ভিটামিন গ্রহণ। ত্বকের  যে কোনো সমস্যা সমাধানে  বিশেষভাবে ভিটামিন প্রয়োজন।

যাদের মুখে ব্রণ এর সমস্যা রয়েছে অথবা অন্য কোনো ত্বকের সমস্যা রয়েছে তাদের অবশ্যই ভিটামিন জনিত ঘাটতি রয়েছে।

তাহলে আজ আমরা ত্বকের যত্ন ও ভিটামিন বি নিয়ে অনেক দরকারি কথাই জেনে নিলাম। আপনারা সবাই ভিটামিন বি ঠিকঠাকভাবে নিন আর সুস্থ থাকুন।